1. sylhetmohanagarbarta@gmail.com : সিলেট মহানগর বার্তা :
বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন
ঘোষণা:
জরুরী নিয়োগ চলছে দেশের প্রতিটি বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা,উপজেলা, স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, ক্যাম্পাস ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি বা সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।
প্রধান খবর:
মানবিক সাহায্যের আবেদন বাঁচতে চায় ৮ বছর বয়সী শিশু রিয়া মনি সাংবাদিক গোলজারের মায়ের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন,আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া কবি মুহিত চৌধুরীর জন্মদিন আজ ওসমানী হাসপাতালের কর্মচারীরা ওয়ার্ড মাষ্টার রওশন হাবিব ও ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারী আব্দুল জব্বারের হাতে জিম্মি সাংবাদিক তাওহীদকে প্রাণনাশের হুমকিতে অনলাইন প্রেসক্লাবের উদ্বেগ সিলেটে সাংবাদিক তাওহীদুল ইসলামকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি লিডিং ইউনিভার্সিটি থেকে পেশাগত অসদাচরণের দায়ে স্থপতি রাজন দাস চাকুরিচ্যুত নবগঠিত ২৮, ২৯, ৩০,৪০, ৪১ ও ৪২ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়কের নাম ঘোষণা গোলাপগঞ্জ উপজেলার উন্নয়ন মেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান গেয়ে মাতিয়েছেন হিল্লোল শর্মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা’র ৭৭তম জন্মদিন উপলক্ষে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মসূচী

মৌলভীবাজারে হিন্দু ধর্ম গোপন করে মুসলিম মেয়েকে প্রেমের বিয়ে,মেয়েটিকে মুসলিম থেকে হিন্দু না হওয়াতে গনধষন।

  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৯৪ বার পড়া হয়েছে

সিলেট বিভাগ ব্যুরো প্রধান।
মৌলভীবাজার জেলার সদর উপজেলার মাতারকাপন গ্রামের মৃত ধনঞ্জয় পুত্র দীপুদেব মোবাইলের মাধ্যমে কমলগঞ্জ উপজেলার আলেপুর গ্রামের মনোয়ারা নামের মেয়েটির সাথে প্রেমের সম্পক হয় একপর্যায়ে দীপুদেব তার হিন্দু পরিচয় গোপন করে ভুয়া কাজি দিয়া মেয়েটি পালিয়ে বিবাহ করে,জুলাই ১/৭/২০২০ তারিখ মৌলভীবাজার ৭ নং চাঁদনীঘাট ইউনিয়ন এর শিমুলতলা বাজারে দীপুর দোকানের পাশে ভাড়া বাসায় মেয়েটিকে নিয়ে ইচ্ছামত স্ত্রীসবাস করে,মেয়েটি দীপুর আত্বীয়সজন দের সাথে দেখা করার বল্লে বিভিন্ন তালবানা করে,শিমুলতলা ভাড়া বাসায় ৩ মাস অতিবাহিত করে পরে দীপুদের তার পরিকল্পনা করে কমলগঞ্জ উপজেলায় মুন্সিবাজার এর পাশে আরেক টি বাসা ভাড়া করে মেয়েটিকে তার আত্বীয়ের সাথে সাক্তাত করার কথা বলে ঐ বাসায় উঠে,সেখানে বাসার মালিক দীপুদের এর আচরনে সন্দেহ হয়,এবং মনোয়ারা বেগম ছেলেটা কে চাপ দেয় তার বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে সকলের সাথে পরিচয় করে দিতে।তখন ও দীপুদেব তার হিন্দু পরিচয় করে তার আরেক টি সংসার আছে সেই সংসারে দুটি বাচ্ছা আছে বলে জানায়,মুসলিম মেয়েটি এসব জানার পর আরও চাপ দেয় তার বাড়ীতে নিয়ে যাওয়ার জন্য,গত ১৮/১০/২০২০ তারিখ ছেলের বন্দু অড়ই মিলে মেয়েটি নিয়ে তার শশুর বাড়ীতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে একটি সি এন জি গাড়িতে উঠে পরে মেয়েটিকে একটি কালিমন্দিরে নিয়ে জোরপূর্বক শাখা শিদুর পরিয়ে হিন্দু বানাতে চায় মেয়েটির হাল্লাচিৎকারে কিছু লোক আসলে সেখান থেকে দীপুদের তার বাড়ীতে নিয়ে আসে মাতারকাপন,বাড়িতে আনিয়া মেয়েটিকে মারধর করে ও একটি ঘরে বন্দী করে রাখে,মেয়েটি যখন মুসলিম ধম ত্যাগ করেনি সিবুদেব ও দীপুদেবের স্ত্রীর সহযোগিতায় অড়ই দেব ও দীপুদেব মেয়েটি কে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধষন করে অশ্লীল ভিডিও ধারন করে ও সবাই মিলে মারধর করে মেয়েটি ঞ্জান হারা হয়ে যায়,ঞ্জান ফিরার পর মেয়েটি তার মায়ের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে মা কতেক লোক নিয়ে ছেলের বাড়িতে যায় এবং এলাকাবাসীর সহযোগিতায় মেয়েটিকে উদ্দার করে নিয়ে আসে,পরেরদিন শিমুলতলাবাজারে বিচার বসে কিন্তূ কিছু কুচ্রিমহলের কারনে কোন সমাধান হয়নি এভাবে মেয়েটিকে ও তার পরিবারকে হুমকি দেওয়া হয় এনিয়ে আইন আদালত না করতে,পরে মেয়ের শারীরিক অবস্তা খারাপ হলে মেয়েটিকে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ২২/১০/২০ তারিখ চিকিৎসার জন্য ভতি করাহলে সেখানে ছেলেটা মেয়েটিকে মিত্যা আস্বাস দেয় সে মুসলিম হবে তাকে বিবাহ করবে,মেয়েটিকে হাসপাতাল নিয়ে আসে তার মুন্সিবাজার ভাড়া বাসায় কিন্তূ প্রতারক ছেলে মেয়েকে একা ফেলে পালিয়ে যায়, এনিয়ে এলাকায় বিচার বসে কিছু প্রভাব শালি ব্যক্তিগন ছেলের টাকা খেয়ে মেয়েটিকে লাঞ্জিত করে তাড়িয়ে দেয়,অসায় মেয়েটি আবার দীপুর সাথে যোগাযোগ করলে দীপু মেয়েটি কে ২/১১/২০২০ অন্য এক জায়গায় নিয়ে যায় সেখানে কতেকজন মিলে গনধষন পরে ৩/১১/২০ তারিখ মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভতি হয়ে চিকিৎসা করে, মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচাজ ও তদন্ত কে অবগত করে নিরাশ হয়েযান, এলাকার কিছু বখাটে প্রতিদিন মেয়ের পরিবারকে হুমকি দিয়া আসছে, পরে ১৬/১১/২০২০ তারিখ মৌলভীবাজার নারি ও শিশু নির্যাতন আদালতে মামলা দায়ের করে মেয়েটি, মামলা নং ২২৪/২০, এই মামলা দ্বায়ের করার পর থেকে আসামি দীপুদেব সিবু দেব ও আসামি অড়ই বড় ভাই মতিদেব হিরাদেব ও দীপুদেব ভাগিনা শ্যামল দেব সহ আরও অনেক মেয়েকে ও তার পরিবার মামলা তুলে নিতে হুমকি দামকি অব্যাহত আছে এমনকি সজল দেব ও শ্যামল দেব সহ সকলে লোক মুখে প্রচার করছে যে কোন সময় ধষিতা মুসলিম মেয়েকে অপহরনন ইন্ডিয়ায় প্রচার করে দিবে,বা তাকে হত্যা করে লাশ গোম করে ফেলবে।মেয়েটি পুলিশ সুপার ও উধত্ম প্রসাশনে সহযোগিতা চায় তার প্রাণের নিরাপত্তা ও আইনি এদের বিরুদ্ধে আইনিপদক্ষেপ নিতে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

পুরাতন সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: এন আর