1. sylhetmohanagarbarta@gmail.com : সিলেট মহানগর বার্তা :
বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন
ঘোষণা:
জরুরী নিয়োগ চলছে দেশের প্রতিটি বিভাগীয় প্রতিনিধি, জেলা,উপজেলা, স্টাফ রিপোর্টার, বিশেষ প্রতিনিধি, ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি, ক্যাম্পাস ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি বা সাংবাদিক নিয়োগ চলছে।
প্রধান খবর:
মানবিক সাহায্যের আবেদন বাঁচতে চায় ৮ বছর বয়সী শিশু রিয়া মনি সাংবাদিক গোলজারের মায়ের ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন,আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া কবি মুহিত চৌধুরীর জন্মদিন আজ ওসমানী হাসপাতালের কর্মচারীরা ওয়ার্ড মাষ্টার রওশন হাবিব ও ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারী আব্দুল জব্বারের হাতে জিম্মি সাংবাদিক তাওহীদকে প্রাণনাশের হুমকিতে অনলাইন প্রেসক্লাবের উদ্বেগ সিলেটে সাংবাদিক তাওহীদুল ইসলামকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি লিডিং ইউনিভার্সিটি থেকে পেশাগত অসদাচরণের দায়ে স্থপতি রাজন দাস চাকুরিচ্যুত নবগঠিত ২৮, ২৯, ৩০,৪০, ৪১ ও ৪২ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও যুগ্ম আহবায়কের নাম ঘোষণা গোলাপগঞ্জ উপজেলার উন্নয়ন মেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান গেয়ে মাতিয়েছেন হিল্লোল শর্মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা’র ৭৭তম জন্মদিন উপলক্ষে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কর্মসূচী

এডভোকেট আবু হাফিজ ও সৈয়দা সাহারবানু স্মরনে দোয়া মাহফিল

  • প্রকাশিত: শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ২৩৫ বার পড়া হয়েছে

প্রখ্যাত রাজনীতিবিদ ও আইনজীবী মরহুম এডভোকেট আবু আহমদ আব্দুল হাফিজ ও তার সহধর্মিণী রাজনীতিবিদ ও শিক্ষানুরাগী সৈয়দা সাহারবানু স্মরনে সিলেট নগরীর হাফিজ কমপ্লেক্সে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে নগরীর ধোপাদিঘীর পারস্হ হাফিজ কমপ্লেক্সে পরিবারের পক্ষ থেকে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও এ দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। এতে মরহুম আবু হাফিজ ও সৈয়দা সাহার বানু ও পরিবারের মরহুম সকল সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে এবং দেশ ও জাতির সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করে মোনাজাত করা হয়। এসময় এডভোকেট হাফিজের ছেলে মেয়ে সহ পরিবারের সকল সদস্য,আত্মীয় স্বজন সহ সমাজের সকল শ্রেণীপেশার লোকজন এতে অংশনেন।

উল্লেখ্য যে, মরহুম এডভোকেট আবু আহমদ আব্দুল হাফিজ ১৯০০ সালে সিলেট শহরের একটি সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহন করে ১৯৮৫ সালে তিনি ইন্তেকাল করেন। জীবদ্দশায় তিনি ছাত্রজীবন থেকে মৃত্যুকাল পর্যন্ত বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলে রাজনীতি,শিক্ষা ও সমাজ উন্নয়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখে গেছেন। এডভোকেট আবু হাফিজ মুসলিমলীগ বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের প্রতিষ্ঠিতা সাধারন সম্পাদক,সিলেট রেফারেন্ডাম বোর্ডের সাধারন সম্পাদক,সিলেট ল কলেজের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও দীর্ঘকাল এর প্রেন্সিপাল হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়াও তিনি বহুবার সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাঁরই সহ ধর্মিণী সৈয়দা সাহারবানু তৎকালীন সময়ে সিলেট অঞ্চলে নারী নেতৃত্বের অগ্রদূত ছিলেন।

তিনি তখনকার সময়ে সিলেট শহরে অনেকগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা ও পরিচালনার সাথে জড়িত ছিলেন,এছাড়াও তিনি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি বিভিন্ন সংগঠনের দায়িত্ব তিনি আমৃত্যু পালন করেন। তিনি দীর্ঘদিন মহিলা মুসলিম লীগ সিলেট অঞ্চলের প্রতিষ্ঠাতা সহসভাপতির দায়িত্ব ও পালন করেন। বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের রত্নগর্ভা পিতা ও মাতা হিসেবে সিকৃত এডভোকেট আবু হাফিজ ও তাঁর সহধর্মিণী সৈয়দা সাহারবানু ৭ ছেলে ও ৬ মেয়ের জনক ও জননী ছিলেন। তাদের প্রতিটি ছেলে ও মেয়ে উচ্চ শিক্ষা অর্জনের পাশাপাশি দেশ ও বিদেশে স্ব স্ব কর্মে সফলতার উজ্জ্বল স্বাক্ষর রেখে যাচ্ছেন। তাদের ছেলেদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব ও অর্থমন্ত্রী আবল মাল আবদুল মুহিত,সাবেক কুটনৈতিক বর্তমান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড,এ কে আব্দুল মুমিন এমপি। বড় ছেলে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি ছিলেন। এক ছেলে ড,এ কে মুবিন বাংলাদেশ সরকারের সাবেক সচিব ও ন্যাশনাল টি বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। অন্য ছেলে এ এস এ মুয়িয সুজন বর্তমানে বাংলাদেশ পল্লী শিশু ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন,এরআগে তিনি সরকারী বেসরকারি বিভিন্ন পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। তাদের মেয়েদের মধ্যে বাংলাদেশের প্রখ্যাত চিকিৎসক জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ সাহলা খাতুন,আরেক মেয়ে শিফা হাফিজ ব্রাকের সাবেক পরিচালক ছিলেন। তাদের বাকি ছেলে মেয়েরা দেশ ও বিদেশে বিভিন্ন পেশায় উচ্চ পর্যায়ে নিয়োজিত রয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

পুরাতন সংবাদ পড়ুন

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯  
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায়: এন আর